আজ ৯ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৩শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

কুড়িগ্রামে স্ত্রীকে গলাকেটে হত্যা ও পাষন্ড স্বামী আটক-প্রত্যাহ বার্তা

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি: কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারীতে দাম্পত্য কলহের জেরে শ্বশুর বাড়িতে এসে ধারালো অস্ত্র দিয়ে স্ত্রীকে গলাকেটে হত্যা করেছে এক পাষন্ড স্বামী । ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার মধ্যরাতে উপজেলার পাইকেরছড়া ইউনিয়নের মাওলানা পাড়া গ্রামে ।

নিহত গৃহবধুর নাম শাহিদা বেগম সে ওই গ্রামের শাহজাহান আলীর কন্যা। এ ঘটনায় ঘাতক স্বামী আবুবকর সিদ্দিককে আটক করেছে পুলিশ।

নিহতের পরিবার ও পুলিশ জানায়, গত কয়েক মাস থেকে শাহিদা এবং তার স্বামী একই গ্রামের মৃত আব্বাছ আলীর পুত্র আবু বকর সিদ্দিকের মধ্যে কলহ চলে আসছিলো । দাম্পত্য কলহের জেরে কিছু দিন আগে শাহিদা বেগম ছোট সন্তান নিয়ে বাবার বাড়িতে চলে আসেন।

সোমবার রাতে শাহিদার স্বামী আবু বকর সিদ্দিক শ্বশুর বাড়িতে আসেন। রাত তিনটার দিকে শাহিদাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে গলা কেটে হত্যা করে পালিয়ে যায় আবুবকর।

ইউপি সদস্য আবু সায়াদাত বজলুর রহমান বলেন, শাহিদা বেগমের (৪০) সাথে প্রায় ২৪ বছর পূর্বে একই গ্রামের মৃত আব্বাছ আলীর পুত্র আবুবকর সিদ্দিক (৪৪) এর বিয়ে হয়।

সে পেশায় একজন কাঠ ব্যবসায়ী। দাম্পত্য জীবনে তাদের ৩টি কন্যা সন্তান রয়েছে। গত কয়েক মাস থেকে তাদের মধ্যে কলহ চলে আসছিলো। দাম্পত্য কলহের জেরে কিছু দিন আগে শাহিদা বেগম ছোট সন্তান নিয়ে বাবার বাড়িতে চলে আসেন।

সোমবার রাতে শাহিদার স্বামী আবু বকর সিদ্দিক শ্বশুর বাড়িতে আসেন। রাত তিনটার দিকে শাহিদাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে গলা কেটে হত্যা করে।

নিহতের চাচা মহির উদ্দিন বলেন, তাদের মধ্যে বনিবনা না হওয়ায় নিহত শাহিদা কিছু দিন থেকে তার বাবার বাড়িতে ছিলেন।

ঘাতক সিদ্দিক আলী মাঝে মধ্যে বাড়িতে আসা-যাওয়া করতো। সোমবার রাতেও সিদ্দিক আলী তার শ্বশুর বাড়িতে যান। রাত্রি ৩টার দিকে চিৎকার শুনে আমরা এসে দেখি শাহিদার রক্তাক্ত দেহ পড়ে আছে বিছানায়। এ সময় তার ছোট মেয়েও আহত হয়েছে ।

ভূরুঙ্গামারী থানার অফিসার ইনচার্জ আলমগীর হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করেছে । গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পলাতক আবুবকর সিদ্দিককে পাশ্ববর্তী এলাকা থেকে সকালেই আটক করা হয়েছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে।

Leave a Reply

     এই বিভাগের আরও খবর