আজ ৯ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৩শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

ঝাউদিয়াতে ইউপি নির্বাচন আচরণবিধি শিকেয় তুলে দেয়ালে ঝুলছে নির্বাচনী পোস্টার

সাইফ উদ্দীন আল-আজাদ, কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধিঃ- আচরণবিধি শিকেয় তুলে দেয়ালে ঝুলছে নির্বাচনী পোস্টার নির্বাচনী আচরণবিধিকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে কুষ্টিয়া সদর উপজেলার ঝাউদিয়া ইউনিয়নের প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীরা প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। নির্বাচনী আচরণবিধির কাগজ প্রার্থীদের হাতে হাতে দেওয়া থাকলেও অনেক প্রার্থীই তা মানছেন না। ঘরের দেয়ালে, দোকানের দেয়ালে ও বিদ্যুতের খুঁটিতেও সাঁটানো পোস্টার। এমনকি স্টিকারগুলো ছেয়ে গেছে মোটরসাইকেলগুলোতে। আচরণবিধিকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে আগামী ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিতব্য কুষ্টিয়া সদর উপজেলার নির্বাচনী এলাকায় এমন চিত্র দেখা গেছে। সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, এ ক্ষেত্রে উপজেলার ঝাউদিয়া ইউনিয়নে সবচেয়ে বেশি আচরণবিধি লঙ্ঘন হয়েছে। দেখা গেছে, কোথাও চেয়ারম্যান প্রার্থী, কোথাও বা ইউপি সদস্য ও সংরক্ষিত প্রার্থীর পোস্টার চায়ের দোকান থেকে শুরু করে বসতঘরেও লাগানো হয়েছে। আর মোটরসাইকেলগুলোর অধিকাংশতেই স্টিকার লাগানো। কয়েকজন মোটরসাইকেলচালক জানান, তাঁদের ইচ্ছার বিরুদ্ধেও গাড়িতে পোস্টার লাগিয়ে দেওয়া হয়েছে। দেখা গেছে, দোকানে পোস্টার লাগানো নিষেধ থাকলেও ঝাউদিয়া ইউনিয়নের প্রার্থীদের পোস্টার লাগানো দেখা যায়। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, শুরুতে ঝাউদিয়া ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় এভাবে আচরণবিধি না মেনে পোস্টার লাগানো হয়েছিল। দেখা গেছে, স্বতন্ত্র প্রার্থীর চশমা মার্কার চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী-সদস্যদের পোস্টার বিভিন্ন দেওয়ালে ভরে আছে। তবে এ প্রসঙ্গে প্রার্থীরা বলছেন, পোস্টার-লিফলেট কিংবা স্টিকার লাগানোর বিষয়টি তাঁরা অবগত নন। অতিউৎসাহী কর্মী-সমর্থকদের কাজ এগুলো। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসার বলেন, আচরণবিধি লঙ্ঘন করে যাঁরা দেয়ালে পোস্টার-লিফলেট লাগিয়েছেন, ওই সব প্রার্থীকে মৌখিকভাবে তা সরিয়ে ফেলতে বলা হয়েছে। তার পরও যদি কেউ না সরান তাহলে শোকজসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

     এই বিভাগের আরও খবর