কুষ্টিয়া পৌরসভার নোটিশকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে ও ভাই বোনদের জমি আত্মসাৎ করে বাড়ি নির্মাণের অভিযোগ ।কে এই সানি পর্ব ১…..

নিজস্ব প্রতিবেদক: কুষ্টিয়া মডেল থানাধীন ১৮ নং ওয়ার্ড পূর্ব মজমপুর নূরানী মসজিদের সামনে ৪১ মফিজ উদ্দিন বিশ্বাস লেনের বাসিন্দা মৃত নুরুল আলম সেন্টুর ছোট পুত্র সানি আহমেদ সনির বিরুদ্ধে কুষ্টিয়া পৌরসভার বাড়ির নকশা বহির্ভূত ও অবৈধ ভাবে বাড়ি নির্মাণ ও বোনদের জমি আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ভাইবোনদের মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে , যে কোনো সময় অনাকাঙ্ক্ষিত দুর্ঘটনা ঘটতে পারে এমনটাই মনে করছে এলাকাবাসী। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় পৌরসভার নকশা বহির্ভূত বাড়ি নির্মাণ করছে এমনকি রাস্তার জায়গা দখল করে উপরে অতিরিক্ত ৬ফিট ছাদ নির্মাণ করছে, যা কলাম এবং ভিম ছাড়া । যেকোনো সময় ঐ ছাদ ভেঙে মানুষের প্রাণহানি হতে পারে। এ বিষয়ে এলাকাবাসীদের সাথে কথা হলে তারা বলেন যে রাস্তা দখল করে বাড়ি নির্মাণের কাজ করছে , ঐ সময় তার কাজে বাধা দিলে আমাদের উপরে চড়াও হয়। এ বিষয়ে সনির বড় বোন ও ভাইদের সাথে কথা হলে তারা জানান আমাকে না জানিয়ে অতিরিক্ত জমি জায়গা লেখে নেয়। এই বিষয় নিয়ে আমার স্বামীর সাথে ও কলহ সৃষ্টি হয়েছে আমার বাবা-মা দুজনে অনেক আগে মারা গিয়েছে আমার ছোট ভাইকে আমি কোলে পিঠে করে মানুষ করেছি অথচ সেই ছোট ভাই আমার কষ্ট বুঝছে না। আমার সাথে প্রতারণা ও জমি জালিয়াতি করছে যা আমি কখনোই চিন্তা করতে পারিনা । আমি সরকারের কাছে আবেদন জানাচ্ছি আমার পাওনা জমিটুকু আমি উদ্ধার করতে পারি। সানির বড় ভাই শামীম জানান বাবার সম্পত্তি ভাই বোনের মধ্যে এখনো পর্যন্ত বণ্টননামা দলিল সম্পাদন হয় নাই সে কিভাবে বাড়ি নির্মাণ করে। এ বিষয়ে তাকে নিষেধ করা হলে সে প্রাণনাশের হুমকি দেয়। এ বিষয়ে পৌরসভার সার্ভেয়ার আবদুল মান্নান ও ১৮ নং ওয়ার্ডের কমিশনার শাহ জালাল এর সাথে কথা হলে তারা আমাদেরকে জানান পৌরসভার নকশার বহির্ভূত বাড়ি নির্মাণ করেছে শুধু তাই নয় বাড়ির চতুর্পাশে যে জায়গাটা সেরে বাড়ি করার কথা ইঞ্চি পরিমাণ জায়গাও সে ছাড় দেয় নাই সে কারণে তাকে ২টি নোটিশ দেয়া হয়েছে। এ বিষয়ে সরোজমিনে গিয়ে সানির সাথে কথা হলে তিনি সাংবাদিকদের উপরে চড়াও হন।