আজ ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৯শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

কলারোয়ায় মামলা থেকে রক্ষা পেতে নিজের ঘরে আগুন,অন্যকে ফাসানোর চেষ্টা

বিশেষ প্রতিনিধি,কলারোয়াঃ কলারোয়া উপজেলার কুশোডাঙ্গা ইউনিয়নের মেহমানপুর গ্রামে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে নিজের ঘরে নিজে আগুন দিয়ে প্রতিপক্ষকে ফাসানোর চেষ্টা চালিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। সরেজমিনে যেয়ে জানা যায়, ক্রয়কৃত জমির মালিক মেহমানপুর গ্রামের মৃত.শামছের গাজীর ছেলে আকছেদ আলী গাজী সাংবাদিকদের জানান, ২০১৪ সালে কোবলা মূলে ২১ শতাংশ জমি ক্রয় করে ভোগ দখল করতে আসছেন। কিন্তু হঠাৎ করে একই গ্রামের খোরশেদ আলীর প্ররোচনায় মেহমানপুর গ্রামের মৃত.দেলোয়ার দফাদারের ছেলে আবুল কাশেম দফাদার রাতের আঁধারে সেখানে একটি ছোঁফড়া ঘর তুলে দেয় এবং সাতক্ষীরা বিজ্ঞ আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। দুই পক্ষের কাগজ পত্র পর্যালোচনা পূর্বক বিজ্ঞ আদালতের বিচারক আকছেদ আলী গাজীকে ভোগ দখলের পক্ষে রায় দিয়ে দখল বুঝে নিতে আদেশ প্রদান করেন। সে মোতাবেক গত ৯নভেম্বর ২০২১ উক্ত জমিতে কাজ করতে গেলে প্রতিপক্ষরা ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী এনে আকছেদ আলীর হাত ভেঙ্গে দেয় এবং তার বেয়াই এর হাতে কোপ দেয়। এ বিষয়ে কলারোয়া থানায় একটি হত্যা প্রচেষ্টা মামলা নং-২৭(১১)২১ দায়ের হয়। প্রকৃত ঘটনা ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করতে কিছু কু-চক্রী ব্যক্তির প্ররোচনায় রাতে সেখানে জোর করে দখল করা জমিতে ছোঁফড়া ঘরে আগুন ধরিয়ে দেয়। যেটা সম্পূর্ণ সাজানো নাটক বলে এলাকাবাসী মনে করেন। জমির কোবলা দলিল মূলে ক্রয় কৃত মালিক আকছেদ আলী প্রকৃত ঘটনা তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য কলারোয়া থানার বিচক্ষণ অফিসার ইনচার্জ ও পুলিশের উদ্ধোর্তন কর্মকর্তাদের সু-দৃষ্টি কামনা করেছেন। এ ব্যাপারে আবুল কাসেমের কাছে ঘর জালানোর বিষয়ে জানার চেষ্টা করে তাকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। কিন্তু পাশের বাড়ীর একজনের কাছে জানতে চাইলে নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, ভাই এটা সম্পূর্ণ সাজানো নাটক। এ বিষয়ে কলারোয়া থানার অফিসার ইনচার্জ আলহাজ্ব মীর খায়রুল কবির জানান, এ বিষয়ে প্রকৃত ঘটনা তদন্ত পূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Leave a Reply

     এই বিভাগের আরও খবর