আজ ১১ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

সিলেট জেলা ছাত্র জমিয়তের কাউন্সিল সম্পন্ন; সভাপতি আব্দুল হামিদ, সম্পাদক লোকমান

আবু তালহা তোফায়েল :: আজ ০৯ সেপ্টেম্বর (বৃহস্পতিবার) দুপুর ২ টায় সিলেট জেলা জমিয়তের কার্যালয়ে, ছাত্র জমিয়ত বাংলাদেশ সিলেট জেলা শাখার কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হয়। জেলা ছাত্র জমিয়তের কাউন্সিল দুই অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন সদ্য বিদায়ী আহ্বায়ক হাফিজ ফরহাদ আহমদ ও জেলা জমিয়তের ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা জফির উদ্দিন, লুকমান হাকিম ও হুসাইন আহমদের যৌথ পরিচালনায় অনুষ্ঠিত কাউন্সিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মহানগর জমিয়তের সভাপতি আলহাজ্ব মাওলানা খলিলুর রহমান বলেন, শতাব্দীর প্রাচীনতম রাজনৈতিক সংগঠন জমিয়তের অগ্রযাত্রায় ছাত্র জমিয়তের গাইডলাইন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। জমিয়ত এখন যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত নিচ্ছে। ইসলামের বিজয় উত্তানে জমিয়ত একনিষ্ঠ কাজ করে যাচ্ছে। তিনি বলেন, কারাগারে থাকা আলেমদের মুক্তির দাবি জানাচ্ছি, ৯২% মুসলিমদের দেশে মসজিদ-মাদ্রাসা নির্মাণে অনুমতি লাগবে এমন প্রজ্ঞাপন- প্রত্যাহারের জোর দাবি জানাচ্ছি। প্রধান বক্তার বক্তব্যে ছাত্র জমিয়ত বাংলাদেশের সভাপতি এখলাছুর রহমান রিয়াদ বলেন, ছাত্র জমিয়ত এখন নতুন চ্যালেঞ্জ হাতে নিচ্ছে, নতুন-উদ্যমী-কর্মঠ-মেধাবী ছাত্রদের নিয়ে এই যাত্রা সফল হবে ইনশাআল্লাহ। শতবছরের দিগন্তে গড়ে উঠা ঐতিহ্যবাহী এই সংগঠন থেকে জনগনকে বিমুখ করার বিভিন্ন পায়তারা করছে ক্ষমতাসীনরা। জমিয়তকে গাইডলাইন দেওয়ার জন্য ১৯৯২ সালে ছাত্র জমিয়তের পথচলা শুরু হয়, তখন থেকে দীর্ঘ ৩০ বছরের লম্বা এই পথচলায় একমুহূর্তের জন্য হলেও পথবিচ্যুৎ হয়নি, রাজনৈতিক কিংবা আদর্শিকভাবে হোক, সবসময় সঠিক পথে পরিচালিত হয়ে আসছে- এটা ছাত্র জমিয়তের সফলতা। আজ নানান দিক থেকে জমিয়তকে জনগণের কাছ থেকে সরানোর ষড়যন্ত্র চলছে, ইসলামের বিজয়ের এই উত্তানে জমিয়তকে ঠেকানোর পায়তারা চলছে, তবে জমিয়ত বা তাঁর অঙ্গ সংগঠন শতবছর থেকে ছিল, আছে ও থাকবে ইনশাআল্লাহ। তিনি আরও বলেন, আজ স্যাকুলারিজম, নাস্তিক্যবাদ ও হিন্দুত্ববাদী আগ্রাসন এতটাই মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে যে, পাহাড়ের চূড়ায় আজান দেওয়ায় দুই মাদ্রাসা ছাত্রকে আটক করেছে প্রশাসন। এটা কীসের আলামত? আমরা এমন নেক্কারজনক ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই এবং মুক্তির দাবী জানাই, পাশাপাশি ছাত্র জমিয়ত যেহেতু এদেশের আপামর জনসাধারণ নিয়ে কথা বলে, আগামীর বাংলাদেশকে নেতৃত্ব দেওয়ার চিন্তা করে। আমরা বাংলাদেশে কসাই মুদি আগমন উপলক্ষে যেসব উলামায়ে কেরাম আটক হয়েছেন, তাদের মুক্তির দাবী জানাচ্ছি। যদি সরকার মুক্তি দিতে আর কালকেপন করে, তাহলে ইসলাম প্রিয় মানুষ উচিৎ জবাব দিতে ভুল করবে না। বক্তব্য শেষে সিলেট জেলা ছাত্র জমিয়তের ২০২১-২২ সেশনের মাওলানা আব্দুল হামিদ খানকে সভাপতি, লোকমান হাকিমকে সাধারণ সম্পাদক, মুশতাক আহমদকে সাংগঠনিক সম্পাদক ও আবু তালহা তোফায়েলকে প্রচার সম্পাদক করে ২৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ঘোষণা করেন। অনুষ্ঠানের শুরুতে বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা জমিয়তের সভাপতি মাওলানা মুশাহিদ দয়ামিরি, বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সাবেক কেন্দ্রীয় ছাত্র জমিয়তের সভাপতি মাওলানা নজরুল ইসলাম, জেলার সাংগঠনিক সম্পাদক নূর আহমদ কাসেমী, কেন্দ্রীয় ছাত্র জমিয়তের সহ-সভাপতি আহমদুল হক উমামা।উপস্থিত ছিলেন সিলেট মহানগর ছাত্র জমিয়তের সভাপতি লুৎফুর রহমানসহ সিলেটের বিভিন্ন উপজেলার তৃণমূল জমিয়তের নেতৃবৃন্দ

Leave a Reply

     এই বিভাগের আরও খবর