আজ ১১ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

“রাস্তা নয় তো যেনো মরণ ফাঁদ “

মোঃ জাহাঙ্গীর আলম শ্যমনগর প্রতিনিধি ঃ ডিজিটাল বাংলাদেশ যখন উন্নয়নের জোয়ারে ভাসছে ঠিক তখনই সঠিক নেতৃত্বের অভাবে এখনো অনেক ইউনিয়নের মানুষদের বর্বরতার জীবন পালন করতে হচ্ছে, আজ বলবো সাতক্ষীরা জেলার শ্যামনগর উপজেলার বাংলাদেশ শেষ সীমান্ত বর্ডার এলাকা কৈখালী ইউনিয়নের কথা,অবহেলিত এই ইউনিয়নের নাগরিকদের বেঁচে থাকতে হয় প্রতিকুল পরিস্থিতির সাথে যুদ্ধ করেই,এই ইউনিয়নে অল্প কিছু কার্পেটিং রাস্তা থাকলেও বেশিরভাগই ইটের রাস্তা,কিছু প্রভাবশালীদের কারণে প্রতিনিয়ত পিকআপ,মাহিন্দ্র সুখের দুলালীদের সুখ বৃদ্ধির জন্য নিয়ে যায় ইট,বালি, রড সিমেন্ট, প্রভাবশালী হওয়ার কারণে সাধারণ জনগন কিছুই বলতে পারে না এদের।এই ইউনিয়নে যেই ক্ষমতায় আসুক আত্ম হিংসার কারণে কেও কখনও সাধারণ মানুষের কথা চিন্তা করেনা,নিজেদের স্বার্থ নিয়েই চলতে থাকে।বিশেষ করে বর্ষার মৌসুমে এই সমস্ত রাস্তাগুলো বেশিরভাগ মানুষ চলাচল করলেও নজর নেই মৌসুমি পাখির মত নির্বাচনের সময় জুড়ে আসা বিভিন্ন প্রভাবশালী চেয়ারম্যান ও মেম্বার পদপ্রার্থীদের।এলাকার কিছু মানুষের প্রচেষ্টায় অল্প কিছু সংস্কার হলেও সেটা সুখ বাবুদের সুখের কারণে অচল হয়ে যায়।ভোগান্তির স্বীকার হয় সাধারণ জনগন। এলাকাবাসী এই ভোগান্তির স্বীকার যাতে না হয় উর্দ্ধোতন কর্মকর্তাদের সুদৃষ্টি কামনা করছে।

Leave a Reply

     এই বিভাগের আরও খবর