আজ ১১ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

শ্যামনগর উপজেলা চেয়ারম্যানকে চিকিৎসা করেনি প প কর্মকর্তা, জনমনে ক্ষোভ

শ্যামনগর প্রতিনিধি: আজ ২ রা আগস্ট সোমবার বেলা 11 টার সময় শ্যামনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক উপজেলা চেয়ারম্যান এস এম আতাউল হক দোলন উপজেলা পরিষদের নিজস্ব কার্যালয়ে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন। এ সময় তার অফিস সহকারি আকবর হোসেন উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ অজয় সাহাকে মোবাইল ফোনে উপজেলা চেয়ারম্যানের অসুস্থতার খবর জানান এবং একজন ডাক্তার পাঠাতে অনুরোধ করেন, ডাঃ অজয় সাহা জানান হাসপাতালের বাহিরে রুগী দেখার নিয়ম নাই বলে ফোন সংযোগ কেটেদেন। আকবর আলী তাৎক্ষণিক বেসরকারি ফ্রেন্ডশিপ হাসপাতালে ফোন করে এ্যামবুলেন্স পাঠাতে বলেন, ফ্রেন্ডশীপ হাসপাতাল থেকে এম্বুলেন্স এসে উপজেলা চেয়ারম্যান কে নিয়ে যায়, তিনি বর্তমান ফ্রেন্ডশিপ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।
উপজেলা চেয়ারম্যানের পিতা সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযুদ্ধা আলহাজ্ব একে ফজলুল হক জানান, গতকাল পানিবন্দি এ স্থানে করণা টিকা প্রদান কেন্দ্রে মানুষের চরম ভোগান্তি দেখে আমার পুত্র উপজেলা চেয়ারম্যান এস এম আতাউল হক দোলন উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তাকে ভর্ৎসনা করে এবং প্রতিবাদ করে। যার কারনে আমার পুত্রের চিকিৎসার জন্য কোন ডাক্তার পাঠাইনি অজয় সাহা। একজন জনপ্রতিনিধি কে মুমূর্ষ অবস্থায় চিকিৎসা না করে যে প্রতি হিংসা দেখিয়েছেন তা অত্যন্ত ন্যক্কারজনক। ডাক্তার অজয় সাহার এমন অমানবিক আচারনের ব্যাবস্থা গ্রহণের জন্য জেলা প্রশাসক ও সিভিল সার্জনকে অবহিত করেছেন। তিনি আরো জানান, কর্তৃপক্ষ যদি কোন ব্যবস্থা গ্রহণ না করেন, ডাক্তার অজয় সাহার বিরুদ্ধে গণআন্দোলন গড়ে তুলবেন বলে জানিয়েছেন।
ডাঃ অজয় সাহার এমন অমানবিক আচরণের ঘটনা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয় উপজেলা চেয়ারম্যানের কয়েকজন শুভাকাঙ্ক্ষী, যার ফলে ডাঃ অজয় সাহাকে নিয়ে ব্যপক নিন্দা ও সমালোচনার ঝড় বইছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে। এ ঘটনা জানার জন্য শ্যামনগর স্বাস্থ্য কর্মকর্তা অজয় সাহাকে বার বার ফোন করে যোগাযোগ পাওয়া যায়নি।

Leave a Reply

     এই বিভাগের আরও খবর