আজ ১লা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৫ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

সাতক্ষীরায় করোনা রোগীর বাড়িতে খাদ্য নিয়ে যাওয়া চেয়ারম্যানও করোনায় আক্রান্ত!

মাহমুদুল হাসান শাওন: সাতক্ষীরার দেবহাটায় লকডাউনে থাকা করোনা রোগীর বাড়িতে নিত্য প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী নিয়ে যাওয়া ইউপি চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলামও করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। আক্রান্ত সাইফুল ইসলাম উপজেলার পারুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। তিনি দক্ষিন পারুলিয়া গ্রামের বাসিন্দা।
শনিবার সাইফুল ইসলামের নমুনা পরীক্ষার রিপোর্টে তার শরীরে করোনা পজিটিভের বিষয়টি নিশ্চিত হন চিকিৎসকরা। এর আগে জ্বর-সর্দিসহ করোনা উপসর্গ থাকায় দেবহাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসকরা সাইফুল ইসলামের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠান।
এদিকে লকডাউনে থাকা করোনা রোগীর বাড়িতে খাদ্য নিয়ে যাওয়ার কারনে তিনি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন নাকি নিজেই করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত অবস্থায় অপর করোনা রোগীদের বাড়িতে খাদ্য সামগ্রী নিয়ে তিনি হাজির হয়েছিলেন সে বিষয়টি এখনও সুষ্পষ্ট নয়।
চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলামের ছায়াসঙ্গী দফাদার নুরুল ইসলাম জানান, জনপ্রতিনিধি হওয়ায় সবসময় জনগনের কাজে ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় যাতায়াত ও মানুষদের সাথে মেলামেশা করতে হয় চেয়ারম্যানকে। বিগত কয়েকদিন ধরে সাইফুল ইসলাম সর্দি ও তীব্র জ্বরে ভুগছিলেন। বৃহষ্পতিবার সকাল ১০টার দিকে দেবহাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে করোনা পরীক্ষার জন্য চিকিৎসকের কাছে নমুনা দেন তিনি। ঘন্টাখানেক পর উপজেলা নির্বাহী অফিসার তাছলিমা আক্তারের নির্দেশে মাঝ পারুলিয়া ও খেজুর বাড়িয়া গ্রামে লকডাউনে থাকা করোনা রোগী শরিফুল ইসলাম এবং মিঠু গাজীর বাড়িতে নিত্য প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিতে যান চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম। সেখান থেকে অফিসিয়াল ও ব্যাক্তিগত কাজ শেষে অসুস্থ্য শরীরে বাড়িতে ফেরেন তিনি। পরদিন শুক্রবারও নিজের ব্যাক্তিগত ও জনগনের প্রয়োজনে একাধিকবার তিনি বাড়ি থেকে বেরিয়েছিলেন বলে একাধিক ব্যাক্তি জানিয়েছে।
চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলামের বাড়ির পাশ্ববর্তী পারুলিয়া শিয়াপাড়া মসজিদের ঈমাম মো. কাশেম শিকারী জানান, সাইফুল ইসলাম এই মসজিদের বেশিরভাগ নামাজ আদায় করেন। শুক্রবার সম্ভবত বাইরে থাকার কারনে জুম্মার নামাজে আসেননি তিনি। তবে শনিবার করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসার আগে মসজিদেই মুসল্লিদের সাথে জোহরের নামাজ পড়েন তিনি।
সাইফুল ইসলামের করোনা সনাক্তের বিষয়টি নিশ্চিত করে উপজেলা নির্বাহী অফিসার তাছলিমা আক্তার বলেন, রিপোর্ট পাওয়ার পর তাৎক্ষনিক ভাবে সাইফুল ইসলামের বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে। বর্তমানে তিনি বাড়িতেই কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন বলেও জানান তিনি।

Leave a Reply

     এই বিভাগের আরও খবর