আজ ৯ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৪শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

২৪ ঘন্টা না পেরুতেই গৌরনদী ওসির দুরদর্শিতায় ড্রামের ভেতরে লাশের পরিচয় ও হত্যার রহস্য উদ্ঘাটন

বি এম মনির হোসেন,স্টাফ রিপোর্টারঃ-

বরিশালের গৌরনদীতে যাত্রীবাহী বাসের ভেতর একটি ড্রামে অজ্ঞাত তরুণীর লাশ পাওয়া গেছে। তার ঠিকানা সহ লাশের হত্যার রহস্য উদ্ঘাটন করেছেন গৌরনদী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আফজাল হোসেন। লাশের নাম ঠিকানা মিসেস ছাবিনা বেগম, 11-NOV-86, পিতা-জনাব সাহেব আলী, মাতা-মাসুদা বেগম, বাসা/হোল্ডিং:৭২৪১, গ্রাম/রাস্তা:999, গ্রাম/রাস্তা:দিয়াশুর, ওয়ার্ড নং-০৮, ডাকঘর:গৌর নদী-৮২৩০, গৌরনদী, গৌরনদী পৌরসভা, বরিশাল।
গতকাল শুক্রবার রাত সাতটার দিকে উপজেলার ভুরঘাটা নামক এলাকায় বাসটি থেকে লাশটি উদ্ধার করে গৌরনদী পুলিশ। বাসের ভেতরে ড্রামভর্তি লাশ পাওয়া বিষয়টি পুলিশকে অবাক করেছে। কী ভাবে কোথা থেকে বা কে লাশটি নিয়ে আসছে এমন কি প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে শুরু করেছে।

এরআগে শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে বরিশাল কেন্দ্রীয় নথুল্লাবাদ বাস টার্মিনাল থেকে ‘ক্লাসিক পরিবহন’র এ বাসটি যাত্রী নিয়ে গৌরনদীর ভুুরঘাটা স্ট্যান্ডের উদ্দেশে ছেড়ে যায়।

বাস স্টাফদের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, পথিমধ্যে বরিশালের প্রবেশদ্বার গড়িয়ারপাড়ে বাসটি থামলে অজ্ঞাত এক যাত্রী ড্রামটি নিয়ে ওঠেন। কিন্তু বাসটি ভুরঘাটা বাসস্ট্যান্ডে পৌছানো পরপরই ওই তড়িঘড়ি করে নেমে যান।

অনেক খোঁজা-খুঁজির পরে যাত্রীকে না পেয়ে স্টাফরা ড্রামটি খুললে দেখতে পায় ভেতরে এক নারীর লাশ। বিষয়টি নিয়ে কোন রকমের বিলম্ব না করে বাসের সুপারভাইজার সংশ্লিষ্ট গৌরনদী থানা পুলিশকে অবহিত করেন। তাৎক্ষণিক গৌরনদী পুলিশের একটি টিম গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে গৌরনদী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আফজাল হোসেন জানান, রক্তাক্ত লাশটি দেখে মনে হচ্ছে তরুণীকে হত্যা করা হয়েছে। এবং লাশটি কোথাও নিয়ে যাওয়ার উদ্দেশে বাসে ওঠানো হয়েছিল। কিন্তু সামনে বিপদ থাকতে পারে এমন ভাবনায় ফেলে পালিয়ে গেছে।

এই ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে হত্যা মামলা রুজু করেছেন ওসি মোঃ আফজাল হোসেন বলেন, তরুণীর লাশ কী ভাবে কোথা থেকে বা কে নিয়ে আসছে এমন কি প্রশ্নের উত্তর পাওয়া গেছে তবে তদন্তের জন্য গোপন রাখা হয়েছে।

Leave a Reply

     এই বিভাগের আরও খবর