আজ ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৯শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

ভাঙন কবলিত এলাকায় জার্মান এ্যাম্বসিডর পিটার ফারহেন হোল্টজ এর ত্রান বিতরণ

বি এম আলাউদ্দীন, আশাশুনি প্রতিনিধি: আশাশুনি উপজেলার শ্রীউলায় কোভিট-১৯ সময়কালে বানভাসী মানুষের মাঝে জরুরী ত্রান সহায়তা বিতরণ ও ভাঙন কবলিত এলাকা পরিদর্শন করেছেন জার্মান এ্যাম্বাসির এ্যাম্বাসিডর এইচই পিটার ফারহেন হোল্টজ। শনিবার সকাল ১০ টায় শ্রীউলা ইউনিয়নের মাড়িয়ালা মোড় চত্বরে কোভিট-১৯ সময়কালে খাদ্য সহায়তা প্রকল্পের আওতায় প্রধান অতিথি হিসেবে ত্রান সহায়তা বিতরণ উদ্বোধনকালে তিনি বলেন, করোনা সময়কালে আমরা ঘুর্নিঝড় আম্পানের আঘাতে প্লাবিত বানভাসি এলাকার মানুষের দুঃখ বুঝতে পেরেছি। বাংলাদেশের সাথে জার্মানি সুসম্পর্ক রয়েছে। যেকারণে জার্মানি সরকার বাংলাদেশ জলবায়ূ পরিবর্তনের ফলে ক্ষতিগ্রস্থ জনগনের ঘুরে দাঁড়ানোর জন্য ৩০০ মিলিয়ন ইউরো প্রদান করেছেন। তিনি আরও বলেন, আমাদের নিজস্ব স্বেচ্ছাসেবক এবং বীর মুক্তিযোদ্ধারা ক্ষতিগস্থ মানুষের তালিকা করেছেন। ত্রাণ বিতরণ উদ্বোধন শেষে জার্মান এ্যাম্বাসির এ্যাম্বাসিডর ভাঙন কবলিত এলাকা পরিদর্শন ও মাড়িয়ালা হাইস্কুল কাম সাইক্লোন শেল্টারে অবস্থানরত বানভাসী মানুষের খোঁজ খবর নেন। জরুরী ত্রান সহায়তা বিতরণ ও ভাঙন কবলিত এলাকা পরিদর্শনকালে এসময় জার্মানি উন্নয়ন সংস্থার প্রতিনিধি ভ্যান মিট ল্যাভ, এনএসআই’র ডিডি জাকির হুসাইন, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (দেবহাটা সার্কেল) আলহাজ্ব শেখ ইয়াছিন আলী, সহকারি কমিশনার (ভূমি) শাহিন সুলতানা, থানা অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মাদ গোলাম কবির, শ্রীউলা ইউপি চেয়ারম্যান আবু হেনা সাকিল, প্রতাপনগর ইউপি চেয়ারম্যান শেখ জাকির হোসেন, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আব্দুল হান্নান, প্রোগ্রাম ম্যানেজার মুনির হোসেন, বীরমুক্তিযোদ্ধাবৃন্দ, বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ, সাংবাদিক, জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবগ উপস্থিত ছিলেন। এসময় এ্যাম্বাসি অফ ফেডারেল রিপাবলিক অফ জার্মান এর অর্থায়নে এবং মিনা ইনক্লুসিভ সোসাইটি ফর ডেভলপমেন্ট’র আয়োজনে উপজেলার শ্রীউলা ও প্রতাপনগর ইউনিয়নের ঘুর্নিঝড় আম্পানের আঘাতে প্লাবিত বানভাসি ২৫০০ পরিবারের মাঝে পরিবার প্রতি ২৫ কেজি চাউল, ১ কেজি ডাল, একটি সাবান ও একপাতা করে পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট বিতরণ করা হয়।

Leave a Reply

     এই বিভাগের আরও খবর