চরমোনাই ইউনিয়নে আ’লীগ প্রার্থীর নির্বাচনী কার্যালয়ে হামলা ও ভাংচুরের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক।।বরিশাল সদর উপজেলার চরমোনাই ইউনিয়নের আওয়ামীলীগের নির্বাচনী কার্যালয়ে হামলা ও ভাংচুরসহ কর্মীদের মারধর করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।গত ৭ নভেম্বর রবিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে বুখাইনগর বাজারে নির্বাচনী প্রচারণার কার্যালয়ে একদল দুর্বৃত্তরা হামলা ও ভাংচুরের ঘটনা ঘটায়।এ সময় নির্বাচনী অফিসের চেয়ার-টেবিল প্রচারের গাড়ীর মাইক ভাংচুরসহ কার্যালয়ে লাগানো নৌকার বেশ কিছু ছবি ও পোস্টার ছিঁড়ে ফেলা হয়েছে। এতে হামলার শিকার হন নৌকার কর্মী মাহবুব, ইউসুফ, শফিক, জাহিদ হাসান মনু সহ ১০/১৫ জন আহত হয়। আহতরা স্থানীয় চিকিৎসা নিয়ে বাড়িতে আছেন।স্থানীয়রা জানান, সাহাদাত নুরীসহ একদল দুর্বৃত্ত সন্ধ্যার আঁধারে নির্বাচনী কার্যালয়ে হামলা চালিয়েছে । হামলাকারীরা নির্বাচনী কার্যালয়ে থাকা সব কিছু তছনছ করে চলে যায়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে আ’লীগের মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ নুরুল ইসলাম (মাস্টার) নিজেই সবাইকে শান্ত করেন। নির্বাচনী অফিসে হামলার বিষয়ে তিনি কোতোয়ালী মডেল থানায়একটি মামলা প্রকৃয়াধীন চলছে বলে জানিয়েছেন। এব্যাপারে আ’লীগে’র প্রার্থী মোঃ নুরুল ইসলাম (মাস্টার) জানান,গত কাল সন্ধ্যায় বুখাইনগর বাজারে, হাতপাখার মিটিং শেষে আমার নির্বাচনীয় অফিসে,।মুফতি ফয়জুল করীম এর উপস্থিতিতে একদল দুর্বৃত্তরা ডুকে আতর্কীত ভাবে হামলা চালায়। নির্বাচন বানচাল করার জন্য সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে অরাজকতা সৃষ্টি করতে চায়। বরিশাল কোতোয়ালী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ জানান, চরমোনাই বুখাইনগরে নির্বাচনী কার্যালয়ে হামলা ও ভাংচুরের খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। অভিযোগ তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।