কেশবপুরে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর উপজেলা সমাবেশ অনুষ্ঠিত

নুরুজ্জামান, স্টাফ রিপোর্টার :
কেশবপুর উপজেলা আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর আয়োজনে উপজেলা সমাবেশ ২৪ মে সকালে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার এম এম আরাফাত হোসেনের সভাপতিত্বে এবং বাঘারপাড়া উপজেলা আনছার ও ভিডিপি কর্মকর্তা শাহিনা আক্তারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী খুলনা রেঞ্জের উপ মহাপরিচালক শাহ আহম্মেদ ফজলে রাব্বী। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী যশোর জেলা কমান্ড্যান্ট সনজয় কুমার সাহা, কেশবপুর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নাসিমা সাদেক ও পলাশ মল্লিক। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা আনছার ও ভিডিপি কর্মকর্তা মোছাঃ সখিনা খাতুন। আরো বক্তব্য রাখেন বিদ্যানন্দকাটি ইউনিয়ন ভিডিপি দলনেতা রবিউল ইসলাম। সমাবেশে সাফল্যঅর্জন কারীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

মৌলভীবাজারের বড়লেখায় যৌতুকলোভী প্রবাসফেরত সেই স্বামীকে কারাগারে প্রেরণ

মোঃ জাকির হোসেন (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধিঃ

বড়লেখায় যৌতুকের দাবীতে স্ত্রীকে নির্যাতনকারী যৌতুকলোভী সেই স্বামী আব্দুল কাইয়ুমকে কারাগারে পাঠিয়েছেন বড়লেখা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ জিয়াউল হক। মঙ্গলবার ভোররাতে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে দুপুরে আদালতে সোপর্দ করে। আব্দুল কাইয়ুম উপজেলার সুজাউল গ্রামের মইন উদ্দিনের ছেলে।

জানা গেছে, সাত বছর আগে উপজেলার সুজাউল গ্রামের সৌদিআরব প্রবাসী আব্দুল কাইয়ুমের সাথে বিয়ে হয় সুলতানা বেগমের। বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের দাবিতে স্বামী আব্দুল কাইয়ুম ও তার প্রথম স্ত্রী আছমা আক্তার হেপী সুলতানার ওপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চালাতে থাকেন। ইউরোপ যাওয়ার জন্য বাবার বাড়ি থেকে ৭ লাখ টাকা এনে দেয়ার দাবি জানান স্বামী আব্দুল কাইয়ুম ও প্রথম স্ত্রী আছমা আক্তার হেপী। টাকা এনে দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে শুরু হতো নির্যাতন। শনিবার যৌতুকলোভী স্বামী আব্দুল কাইয়ুম ও তার প্রথম স্ত্রী আছমা আক্তার হেপী গৃহবধূ সুলতানা বেগমের উপর অমানবিক নির্যাতন চালান। নির্যাতনের এক পর্যায়ে তারা অর্ধমৃত অবস্থায় একটি ঘরে তাকে বন্দী করে রাখেন। খবর পেয়ে গৃহবধু সুলতানা বেগমের বাবা আব্দুল মালিক থানা পুলিশ নিয়ে মুমূর্ষু অবস্থায় মেয়েকে উদ্ধার করে নিজ বাড়িতে নিয়ে যান। সোমবার বিকেলে পুলিশ মামলা রেকর্ড করে আসামী গ্রেফতারে তৎপর হয়। মঙ্গলবার ভোরে শাহবাজপুর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এসআই মাসুক মিয়া নিজ বাড়ি থেকে আব্দুল কাইয়ুমকে গ্রেফতার করেন।

বড়লেখা থানার ওসি (তদন্ত) মো. ফরিদ উদ্দিন জানান, ভিকটিম সুলতানা বেগমের নারী ও শিশু নির্যাতন মামলায় স্বামী আব্দুল কাইয়ুমকে গ্রেফতার করে মঙ্গলবার বিকেলে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। অপর আসামীকেও গ্রেফতারের চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ।

কুুড়িগ্রাম সদররে ডিবি পুলিশের অভিযানে আটক-১

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃ কুড়িগ্রাম সদর উপজেলায় ৮০ বোতল ভারতীয় মদসহ ১জনকে আটক করেছে কুড়িগ্রাম গোয়েন্দা বিভাগ (ডিবি) পুলিশ। গত ২২ মে রাতে কুড়িগ্রাম ডিবি পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ আশিকুর রহমান আশিক এর নেতৃত্বে এস আই আমিনুল হক ও এসআই আলাউদ্দিনসহ সঙ্গীয় ফোর্স গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এই অভিযান চালিয়ে গড়েয়ার পাড় (দুধকুমার নদী সংলগ্ন) এলাকা থেকে ভারতীয় অফিসার চয়েজ নামের ৮০ বোতল মদসহ ১জনকে আটক করে।

আটককৃত আসামী হলেন, সদর উপজেলার মাঠের পাড় গ্রামের আজগার আলীর ছেলে দুলাল হোসেন (২২)। অন্য আর একজন পালিয়ে যায়।

কুড়িগ্রাম ডিবি পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ আশিকুর রহমান আশিক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আসামিকে কুড়িগ্রাম বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

দেবহাটায় ভুমি সেবা সপ্তাহের উদ্বোধন


দেবহাটা প্রতিনিধি: “ভূমি অফিসে না এসে ভূমি সেবা গ্রহণ করুন” “ভূমি সেবা ডিজিটাল, বদলে যাচ্ছে দিনকাল” এ স্লোগানকে সামনে রেখে দেবহাটায় ভুমি সেবা সপ্তাহের উদ্বোধন হয়েছে। রোববার বেলা ১১টায় উপজেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষে উপজেলা নির্বাহী অফিসার এবিএম খালিদ হোসেন সিদ্দিকীর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব মুজিবর রহমান। উপজেলা সমাজ সেবা অফিসার অধির কুমার গাইনের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনি, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান সবুজ। অন্যান্যদের মধ্যেবক্তব্য রাখেন কুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আছাদুল হক, দেবহাটা প্রেসক্লাবের সভাপতি আব্দুর রব লিটু, সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল হাসান শাওন, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা শফিউল বসার, অতিরিক্ত দায়িত্বপ্রাপ্ত উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা করিমুল হক, উপজেলা ভূমি অফিসের কানুনগো ফরিদুর রহমান, ভিপি শাখার প্রধান সহকারী মোয়াজ্জেম হোসেন, নাজির প্রদীপ কুমার, সার্ভেয়ার শফিকুল ইসলাম, দেবহাটা সদর ও সখিপুর ইউনিয়ন ভুমি সহকারী কর্মকর্তা অরুন কুমার পাল, নওয়াপাড়া ইউনিয়ন ভুমি সহকারী কর্মকর্তা নাজমুল হাসান খান চৌধুরী, পারুলিয়া ইউনিয়ন ভুমি সহকারী কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান, কুলিয়া ইউনিয়ন ভুমি সহকারী কর্মকর্তা কান্তি লাল প্রমুখ। উল্লেখ্য, ভূমি অফিসে অনলাইন সেবার মাধ্যমে বর্তমানে ঘরে বসে উন্নয়ন করা প্রদান করা যাবে, ঘরে বসে খতিয়ান ও ম্যাপ পাওয়া যাচ্ছে, অনলাইনে নামজারি এবং ভূমি অফিসের সকল সেবা পেতে ওয়েবসাইটের মাধ্যমে একক্লিকেই সকল সেবা পাওয়া যাবে।

মৌলভীবাজারের জুড়ীতে ভারতীয় মদসহ এক মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

মোঃ জাকির হোসেন (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধিঃ
মৌলভীবাজার জেলার জুড়ীতে ভারতীয় মদসহ এক মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে জুড়ী থানা পুলিশ। শনিবার (২১ মে) রাতে উপজেলার ফুলতলা ইউনিয়ন থেকে মাদক ব্যবসায়ী ইন্দ্রজিৎ চাষা (৪৩) কে গ্রেফতার করা হয়।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গতকাল রাত সাড়ে ১০ টার সময় উপজেলার ফুলতলা ইউনিয়নের রহিমপুর গ্রামের অধীর চাষার ছেলে ইন্দ্রজিৎ চাষা (৪৩) কে নিজ বাড়ী থেকে ২০ বোতল ভারতীয় বিভিন্ন ব্র‍্যান্ডের মদ উদ্ধার সহ আটক করা হয়। থানার অফিসার ইনচার্জ সঞ্জয় চক্রবর্তীর দিক নির্দেশনায় এস আই অনিক রঞ্জন দাসের নেতৃত্বে সঙ্গীয় এ এস আই মহিউদ্দীন ভূঁইয়া, এএসআই জোসেফ আহমদ, এএসআই জহিরুল, এএসআই মোহাম্মদ আলী সহ একদল পুলিশের অভিযানে উক্ত মাদক উদ্ধার করা হয়।

জুড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ সঞ্জয় চক্রবর্তী বলেন, গ্রেফতারকৃত আসামীর বিরুদ্ধে মাদক মামলা দায়ের করে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরন করা হয়েছে। জনস্বার্থে দমন অভিযান অব্যাহত থাকবে।

কুড়িগ্রাম সদররে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ছয়টি পরিবারের স্ত্রী সন্তানকে বেদম মারপিট ও লুটপাট

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃ কুড়িগ্রামে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ছয়টি পরিবারে লুটপাট সংঘটিত হয়েছে। সহায়-সম্বল হারিয়ে নিঃস্ব এসব পরিবার। নিরাপত্তা চেয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে ভূক্তভোগী পরিবার।

জানা গেছে, কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার ভোগডাঙ্গা ইউনিয়নের চর বড়াইবাড়ি গ্রামের উজির মামুদের পুত্র মোঃ বাইজুদ্দিন (৪৫) এর সাথে একই এলাকার এনামুল-রফিকুল দ্বয়ের সঙ্গে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল।

এ নিয়ে কোর্টে একটি মামলাও করেন বাইজুদ্দিন। যার নং-২১৫/২০১৫ইং এবং বিবাদী পক্ষ থেকে একটি ১০৭ ধারায় মামলা করেন। যার পিটিশন নং-৩৫/২২ইং(কুড়িঃ)। এভাবে চলাবস্থায় বাইজুদ্দিন ও তার ভাই-ভাতিজারা কাজের সুবাধে জেলার বাইরে থাকায় গত ১৫.০৫.২০২২ইং দুপুরে এনামুল, রফিকুল, মাসুদ, মেন্ডেল, ইয়াকুব, হামিদুল, এরশাদুল, জাহেদুল, উলদ্দি, নুরনবী, ফুলদ্দিন, আনিছুর সহ আরো ২০/২৫জনের সংঘবদ্ধ একটি দল দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে হামলা চালিয়ে চর বড়াইবাড়ী এলাকার বাইজুদ্দিন, জিয়ারুল হক, আজিজুল, আব্দুল হক, রেজাউল করিম ও শামছুলের বাড়ি ঘরে প্রবেশ কর এলোপাতাড়ি তাদের স্ত্রী সন্তানকে বেদম মারপিট করে এবং আতঙ্ক ছড়াতে ধারালো অস্ত্রের মাধ্যমে হত্যা করা হবে মর্মে হুমকি দিলে তারা প্রাণভয়ে পালিয়ে যায়।

এই সুযোগে বাইজুদ্দিন ও তাদের ভাই-ভাতিজাদের বাড়ি-ঘর, স্বর্ণালঙ্কার, মটর পাম্প, স্প্রে মেশিন, ধান-চাল, সোলার প্যানেল, ফ্যান, টিভি, ফ্রিজ, ট্রাংক, সুকেজ, নগদ টাকা ও আলমারী, অর্ধশত গরু-ছাগল ও প্রয়োজনীয় আসববাপত্রসহ প্রায় ২৫-৩০ লক্ষ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। এতে এলাকাবাসী বাঁধা দিলে তাদেরও হত্যার হুমকি প্রদর্শন করে।

এলাকার নাসির উদ্দিন, বাবর আলী, আবুল কাশেম সহ আরো অনেকে জানান, যেভাবে বাড়ি-ঘর লুটপাট করা হয়েছে তা ৭১’র যুদ্ধকে হার মানিয়েছে। এ সমস্ত পরিবারে বাচ্চাদের বিছানা পর্যন্ত নাই। যা অমানবিক।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত এনামুলের বড় ভাই সাইদুল ইসলাম বলেন, আমি হাসপাতালে আছি। এলাকায় কার ঘরবাড়ি লুটপাট হয়েছে আমি এ ব্যাপারে কিছুই জানি না।

এলাকার আমির হোসেন জানান, গত ১০মে-২২ইং তারিখ বড়াইবাড়ি এলাকায় একটি সংঘর্ষে এক ব্যক্তি নিহত হয়। এরই সুযোগে পূর্ব শত্রুতার খায়েশ মেটাতে হত্যাকান্ডের জড়িত থাকার অভিযোগ তুলে বাইজুদ্দিন ও তার ভাই-ভাতিজার বাড়িঘর লুটপাট করা হয়েছে।

আসলে তিনি বা তার ভাই-ভাতিজারা এর সাথে কোনভাবেই সম্পৃক্ত নয়। যা এলাকার সবাই জানে।

লুটপাটে সবকিছু হারিয়ে নিঃস্ব হওয়া আজিজুল ইসলাম কান্নাজড়িত কন্ঠে বলেন-আমি কুমিল্লায় কাজে ছিলাম। আমার স্ত্রী ফোনে বলছিল ঘরবাড়ি সব লুটপাট করে নিয়ে যাচ্ছে এনামুল-রফিকুলেরা। স্ত্রীর ফোন পেয়ে বাসায় এসে দেখি ভাত রান্না করার হাড়ি-পাতিলও নেই। আমার সব শেষ।

এ ব্যাপারে কুড়িগ্রাম সদর থানার অফিসার ইনচার্জ খান মোহাম্মদ শাহরিয়ার ঘটনার সত্যতার স্বীকার করে বলেন-ওখানে একটি হত্যাকান্ড সংঘটিত হয়েছে সেটির জের ধরে হয়তো ভাংচরের ঘটনা ঘটতে পারে। নিরাপরাধ মানুষের ঘরবাড়ি অন্যায়ভাবে কেউ লুটপাট করে থাকলে আমাকে অভিযোগ দিলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

রেললাইনের উপর গাছ উবড়ে পরায় ৪ ঘন্টা বিলম্বে কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি: রেল লাইনের উপরে একটি গাছ উপরে পরায় কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস ট্রেনটি
সাড়ে ৪ঘন্টা বিলম্বে কুড়িগ্রাম রেল স্টেশন থেকে ঢাকার উদ্দেশ্য ছেরে দিছে। এতে করে দুর্ভোগে পরেছে ট্রেন যাত্রীরা।

কুড়িগ্রাম রেলওয়ে সুত্রে জানা গেছে, গত শুক্রবার ভোর রাতে প্রচন্ড ঝড়ে জয়পুরহাট এলাকায় একটি বট গাছ রেললাইনের উপর উপড়ে পরে। এতে করে ঢাকা থেকে ছেরে আসা কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেসহ কয়েকটি ট্রেন আটকা পরে। পরে ২-৩ ঘন্টা চেষ্টার পরে কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস ট্রেনটি কুড়িগ্রাম স্টেশনে এসে পৌঁছায়।

কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস ট্রেনের যাত্রী মাসুদ রানা জানান, কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস ট্রেনটি নির্ধারিত সময়ে ছেড়ে না দেওয়ায় গন্তব্যে পৌছাতে দেরি হবে। আগামীকাল অফিস করতে পারবো না। তবে এ রকম অভিযোগ প্রায় ট্রেনের সব যাত্রীর।

কুড়িগ্রাম রেলওয়ে স্টেশনের স্টেশন মাষ্টার উত্তর কুমার জানান, ভোর রাতে ঝরের সময় জয়পুর হাট এলাকায় একটি গাছ রেললাইনের উপর উপরে পরে।

এতে করে কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেসসহ কয়েকটি ট্রেন আটকা পরলে সময়মত গন্তব্যে পৌঁছাতে বিলম্ব হয়। ট্রেনটি প্রতিদিন কুড়িগ্রাম স্টেশন থেকে সকাল ৭টা ১৫মিনিটের দিকে ঢাকার উদ্দেশ্য ছেড়ে যায়। তবে দূর্ঘটনার কারণে আজ শনিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস ট্রেনটি ঢাকার উদ্দেশ্যে কুড়িগ্রাম স্টেশন ত্যাগ করে।

উলিপুরে বজ্রপাতে আহত-৩

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃ কুড়িগ্রামের উলিপুরে আকস্মিক বজ্রপাতে গোলাপী বেগম (৪২), নুরুল আমিন ক্বারী(৬৬) ও রাহেনা বেগম (৬৮) নামের তিনজন আহত হয়েছেন। আহতদের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় তাদের কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

জানা গেছে, শনিবার দুপুরে উপজেলার ধামশ্রেনী ইউনিয়নের পূর্ব দড়িচর গ্রামের নামারচর নামক স্থানে ওই তিন ব্যক্তি ধান শুকানোর সময় আকস্মিক শিলাবৃষ্টিসহ বজ্রপাতে গুরুতর আহত হয়।

পরে স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে তাদের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুর রাজ্জাক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

আশাশুনির বড়দলে কুখ্যাত ২ মাদক ব্যবসায়ী আটক

বি এম আলাউদ্দীন আশাশুনি প্রতিনিধি: আশাশুনির বড়দলের কুখ্যাত জুয়া পরিচালনাকারী খোকন গাজীর সহযোগী ২ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে সাতক্ষীরার মাদকদ্রব্য অধিদপ্তর। পৃথক ঘটনায় ৩৫০ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার করা হয়েছে। আশাশুনি থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মমিনুল ইসলাম (পিপিএম) জানান, বুধবার সকাল ১০টায় সাতক্ষীরা জেলা মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের পরিদর্শক হাওলাদার মোঃ সিরাজুল ইসলামসহ সঙ্গীয় ফোর্সের সহয়তায় বড়দল ইউনিয়নের বড়দল গ্রামের বারিক মালির ছেলে আইয়ুব আলি মালি (৪৩)কে ২৫০ গ্রাম গাঁজা ও তার শশুর একই গ্রামের আমজাদ আলী বিশ্বাসের ছেলে নুরুজ্জামান বিশ্বাস (৬৫)কে ১০০ গাঁজাসহ তাদের বাড়ি থেকে হাতেনাতে আটক করেন। এই সংক্রান্তে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে পৃথক পৃথক দুইটি মামলা নাং ১৯-২০(০৫)২২ রুজু করা হয়। আটককৃত আসামীদেরকে বৃহস্পতিবার দুপুরে বিচারার্থে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

জেলা গোয়েন্দা শাখার বিশেষ অভিযানে ২২ পিস ইয়াবাসহ মাদক কারবারি গ্রেফতার

মোঃ জাকির হোসেন (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধিঃ

মৌলভীবাজার বুধবার (১৮ মে ২০২২) বিকাল ১৬.৪০ ঘটিকার সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মৌলভীবাজার জেলা গোয়েন্দা শাখার বিশেষ অভিযানে মৌলভীবাজার সদর মডেল থানার ০৭ নং চাদঁনীঘাট ইউনিয়নের সোনাপুর এলাকায় কালেঙ্গা গামী রাস্তায় জনৈক রহিম মালদার এর পোল্টি ফার্মের সামনে থেকে মোঃ ইমন আহমদ (২০) নামের এক মাদক কারবারিকে ২২ পিস ইয়াবাসহ গ্রেফতার করা হয়েছে।
মাদক কারবারি মোঃ ইমন আহমদ সদর উপজেলার চাঁদনীঘাট ইউনিয়নের পশ্চিম দিগলগজি গ্রামের মৃত খালিক মিয়ার ছেলে।

মৌলভীবাজার জেলা গোয়েন্দা শাখার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ বদিউজ্জামান জানান জেলা গোয়েন্দা শাখার একটি চৌকস দল ২২ পিস ইয়াবাসহ এক মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃত ব্যক্তির বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলা দায়ের করে বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

জাতীয় সম্পর্কে সাম্প্রতিক সংবাদ | আন্তর্জাতিক | সরকার | প্রযুক্তি | রাজনীতি | খেলাধুলা | শিক্ষা …

Exit mobile version